বার্ধক্যে মনের অবসাদ বা ডিপ্রেশন (কি ভাবে বুঝতে পারবেন?)

বার্ধক্য যে কোন মানুষের জীবনে আসবেই যদি সে অনেক দিন বাঁচে। বার্ধক্য এলেই যে নিরাশা বা হতাশা আসবে তার মানে নেই। অনেকেই বৃদ্ধ বয়সেও আনন্দে থাকেন, যদিও মনের মধ্যে মৃত্যুর ভয় ও আরো অনেক চিন্তা থাকতেই পারে। তাছাড়া বার্ধক্যে মনের নানা স্বাভাবিক পরিববর্তন হতে পারে যেমন, ধীরে ধীরে স্মৃতি শক্তি কমে যাওয়া, নানা দৈন্দিন কাজে ভুল হয়ে যাওয়া, আগে যে গতিতে বা স্বাচ্ছন্দে নূতন ধরনের কাজ করতে পারতেন তা করতে অসুবিধা, এমনকি নূতন জায়গায় গিয়ে নিজেকে ঠিকমত মানিয়ে নিতে অসুবিধা হওয়া ইত্যাদি হতে পারে। এ সব অসুবিধা থাকা সত্ত্বেও কম বেশী কারো সাহায্য নিয়েও মোটামুটি স্বাভাবিক জীবন যাপন করা সম্ভব।

এখন প্রশ্ন হোল বার্ধক্যে যদি উপরের উল্লিখিত অবস্থার থেকে অবনতি হয় তবে পরীক্ষা করে দেখা দরকার যে তাদের কি মনের অবসাদ বা ডিপ্রেশন হয়েছে? না এটা একটা স্বাভাবিক অবস্থা। এর জন্য নীচের প্রশ্নগুলি দ্বারা সেটা নির্নয় করা যেতে পারে।

ভারতীয়ের দৈনন্দিন কর্মক্ষমতার নির্ণয়ের জন্য প্রশ্নের তালিকা (EVERYDAY ABILITIES FOR INDIA)

১) কখনও কি এমন হয়েছে যে, যে খাবার খেয়ে একটু পরেই আবার খেতে চেয়েছেন?

২) তিনি কি সঠিক জায়গায় প্রস্রাব করতে পারেন?

৩) কখনো কি তিনি জামা কাপড়েই মল মূত্র ত্যাগ করে ফেলেন?

৪) তিনি কি সঠিকভাবে জামা কাপড় পরতে পারেন?

৫) তিনি কি দলবদ্ধভাবে কোন কাজে অংশগ্রহন করে সঠিকভাবে কাজ সম্পন্ন করতে পারেন?

৬) পারিবারিক কোন গুরুত্তপূর্ণ বিষয়ে যেমন, বিবাহ সংক্রান্ত ব্যপারে সঠিকভাবে তার মতামত প্রকাশ করতে পারেন?

৭) তিনি কি কোন গুরুত্তপূর্ণ কাজে অংশগ্রহন করে সেটা সম্পন্ন করতে পারেন?

৮) দোল,কালীপূজা ইত্যাদি গুরুত্তপূর্ণ উৎসবগুলো কি তিনি মনে রাখতে পারেন?

৯) যদি তাঁকে বলা হয় কোন খবর কারোকে দিতে, তিনি কি সে খবরটি মনে করে তাকে বলতে পারেন?

১০) তিনি কি সঠিকভাবে এলাকার বিভিন্ন ঘটনা যেমন বিবাহ, রাজনীতি, কোন দুর্যোগ ইত্যাদি সম্পর্কে আলোচনা করেন?

১১) কখনো কি তিনি নিজের বাড়ির রাস্তা হারিয়ে ফেলেন?

কি ভাবে কর্মক্ষমতার নির্নয় করা হয়

যদি কেউ কোনো কাজটি করতে পারেন তবে তার জন্য শূন্য ( code 0) এবং কাজটা না করতে পারলে ১(code 1 ) দেওয়া হয়, মানে তখন ধরা হয় সেই উপসর্গ বা অক্ষমতাটা আছে। যদি সব মিলিয়ে বেশী স্কোর হয় তবে ধর নিতে হবে বেশী অক্ষমতা আছে।

অক্ষমতার কারণ হিসাবে জিজ্ঞাসা করা হয় বা নির্ণয় করার চেষ্টা করা হয়। যদি দেখা যায় শারীরিক বা মানসিক দুই কারনেই হচ্ছে তাহলে তাই নথিভূক্ত করা হয়। কেউ যদি বলেন “বয়সের জন্য হচ্ছে”,তাহলে সেটার আরো জিজ্ঞাসা করে সঠিক কারণ বার করার চেষ্টা করা হয়। যদি কোনো শারীরিক কারন না পাওয়া যায় তবে ধরে নেওয়া হয় যে সেটা মানসিক কারনের জন্যই হচ্ছে।

বার্ধক্যের অবসাদ অবস্থা নির্ণয়ের জন্য প্রশ্নের তালিকা ( GERIATRIC DEPRESSION SCALE)

No                                                        প্রশ্ন হ্যাঁ না
১* আপনি কি আপনার জীবন সম্পর্কে সন্তুষ্ট?
আপনার আগ্রহ ও সখগুলি আগের থেকে কি কমে গেছে?
জীবনটা কি শূন্য বলে মনে হয়?
আপনার কি প্রায়ই একঘেয়ে লাগে?
৫* আপনি কি ভবিষ্যৎ সম্পর্কে আশাবাদি?
কোন বোঝা বা চিন্তা মাথা থেকে দূর হচ্ছে না বলে মনে হয়?
নিজেকে বেশীরভাগ সময় উজ্জীবিত মনে হয়?
যে কোন সময় মন্দ কিছু ঘটতে পারে তা নিয়ে কি ভয় পান?
৯* আপনি কি বেশীরভাগ সময় আনন্দে থাকেন?
১০ নিজেকে প্রায়ই অসহায় মনে হয় কি?
১১ আপনি কি প্রায় সময় চঞ্চল ও অস্থির হয়ে পড়েন?
১২ আপনি কি ঘরে থেকে বা ঘরের বাইরে গিয়ে নতুন কিছু করতে ভাল্বাসেন?
১৩ আপনি প্রায়ই কি ভবিষ্যৎ নিয়ে চিন্তিত হয়ে পড়েন?
১৪ আপনার কি মনে হয় যে অন্য অনেকের চেয়ে আপনার স্মৃতিশক্তির বেশী সমস্যা হচ্ছে?
১৫* এখন কি বেঁচে থাকাটা আপনার কাছে বিস্ময়কর মনে হয়?
১৬ নিজেকে প্রায়ই অযোগ্য বলে মনে হয়?
১৭ নিজেকে কি এখন অসহায় বলে মনে হয়?
১৮ আপনি কি অতীত নিয়ে কি খুব চিন্তা করেন?
১৯* আপনি মনে করেন জীবনটা খুব আনন্দময়?
২০ কোন নুতন কাজ শুরু করতে গেলে সেটি কি এখন কঠিন বলে মনে হয়?
২১* আপনি নিজেকে কি বেশ উৎসাহি বলে মনে করেন?
২২ আপনি কি মনে করেন যে আপনার অবস্থা আশানুরূপ নয়?
২৩ আপনি কি মনে করেন যে আপনার বয়সের অন্য সকলে আপনার থেকে বেশী ভাল আছেন?

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *